চীনে পৌঁছেছেন ‘লাভেলো মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ জেসিয়া

0
21

পপুলার২৪নিউজ ডেস্ক :
‘লাভেলো মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ জেসিয়া ইসলাম শুক্রবার সকাল ৮ টায় চীনে পৌঁছেছেন। ৬৭তম মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় ১১৭টি দেশের প্রতিযোগীর সঙ্গে অংশ নেবেন তিনি।

মিস ওয়ার্ল্ডের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হবে ৩১ অক্টোবর চীনের শিমেলং ওশান কিংডমে। সেখানেই সব প্রতিযোগীদের স্বাগত জানানো হবে। এ অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন ৫০০ জন শিল্পী। থাকবে প্রতিযোগীদের প্যারেড।
মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতার সবাইকে ‘টপ মডেল’, ‘ট্যালেন্ট’, ‘মাল্টিমিডিয়া’, ‘স্পোর্ট’, ‘বিউটি উইথ আ পারপাস’ এবং ‘হেড টু হেড চ্যালেঞ্জেস’ বিভাগে লড়তে হবে। ‘হেড টু হেড চ্যালেঞ্জেস’ বিভাগটি এবারই যুক্ত করা হয়েছে এ প্রতিযোগিতায়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আর ইন্টার অ্যাক্টিভিটির ওপর জোর দেওয়া হবে এখানে। নতুন এই বিভাগে অংশ নেবেন শীর্ষ ৪০ জন প্রতিযোগী। এখান থেকে সেরা ২০ জন নির্বাচিত হবেন।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১২.৫০ মিনিটে চায়না সাউদার্ন এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটে চীনের উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করেন জেসিয়া। বিমানবন্দরে আয়োজক প্রতিষ্ঠান ও স্পন্সর প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে জেসিয়াকে বিদায় জানান অন্তর শোবিজের চেয়ারম্যান স্বপন চৌধুরি, ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাসরিন চৌধুরি এবং ডিএমডি চৌধুরি মাশফেকা ইসলাম প্রান্তর। দেশ ছাড়ার আগে সবার কাছে দোয়া ও শুভকামনা প্রত্যাশা করেছেন জেসিয়া ইসলাম। তিনি বলেন, আমি সবার সমর্থন, ভালোবাসা ও দোয়া চাই। বিশ্বমঞ্চে আমি যেন দেশের মুখ উজ্জ্বল করতে পারি।

মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ লাইসেন্সধারী প্রতিষ্ঠান অন্তর শোবিজের চেয়ারম্যান স্বপন চৌধুরী বলেন, ৪ নভেম্বর পর্যন্ত প্রাথমিক পর্যায়ের গ্রুমিং এ অংশ নেবেন জেসিয়া। এরপর ৫-১৬ নভেম্বর দ্বিতীয় পর্যায়ের গ্রুমিং। এর পর ১৭ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে অকশন। সেখানেই বাংলাদেশ থেকে নিয়ে যাওয়া পাটের পণ্য উপস্থাপিত হবে। অকশনে বিক্রি থেকে অর্জিত অর্থ মিস ওয়ার্ল্ড ফাউন্ডেশন এর চ্যারিটিতে দেয়া হয়। এর বাইরে অতিথিদের জন্যও উপহার সামগ্রী নিয়ে গেছেন জেসিয়া।

১৮ নভেম্বর স্থানীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় চীনের সানাইয়া শহরে শুরু হবে ৬৭তম মিস ওয়ার্ল্ডের চূড়ান্ত অনুষ্ঠান। আড়াই ঘণ্টার এই অনুষ্ঠান ডিজাইন করছে বেইজিং রাইজ। উপস্থাপনা করবেন টিম ভিনসেন্ট, মেগান ইয়ং ও স্টিভ ডগলাস। নতুন মিস ওয়ার্ল্ডকে মুকুট পরিয়ে দেবেন বর্তমান বিশ্বসুন্দরী স্টেফানি দেল ভালে। চীনের সানাইয়া সিটি এরেনায় ৬৭তম মিস ওয়ার্ল্ড চূড়ান্ত অনুষ্ঠানের মঞ্চকে ঘিরে থাকবে কঠোর নিরাপত্তা। মূল প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়ার পর ১৯ নভেম্বর দেশে ফিরবেন জেসিয়া।

উল্লে­খ্য, বাংলাদেশে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানের আয়োজক প্রতিষ্ঠান অন্তর শোবিজ ও অমিকন এন্টারটেইনমেন্ট। আর এ আয়োজনের সহকারী প্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে টাইটেল স্পন্সর লাভেলো, ক্রাউন স্পন্সর আমিন জুয়েলার্স, ওয়ারড্রোব পার্টনার নাবিলা, সজীব গ্রুপ, ভীশন, রংধনু গ্রুপসহ আরো কিছু প্রতিষ্ঠান।